Header Border

ঢাকা, রবিবার, ২১শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (গ্রীষ্মকাল) ৩০.৯৬°সে

সাগরিকায় ফাঁদ পেতে অপেক্ষায় বাংলাদেশ.!

সময় সংবাদ রিপোর্টঃ  ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ ওয়ানডেতে মিলেছে জয়ের সুখস্মৃতি। বৃহস্পতিবার শুরু হচ্ছে আরেকটি মিশন টি-টোয়েন্টি সিরিজ। একই ভেন্যু, একই উইকেট এবং একই প্রতিপক্ষ- সবকিছু চেনা থাকায় সাকিব আল হাসানদের অবস্থান অনেকখানি এগিয়ে। সফরকারী ইংল্যান্ডকে বিপদে ফেলতে হোম কন্ডিশনের পুরো সুবিধা কাজে লাগাচ্ছে তারা। ২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে একটি ম্যাচ খেললেও এবারই প্রথম তাদের সঙ্গে টি-টোয়েন্টি সিরিজ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ঢাকায় যাওয়ার আগে চট্টগ্রামের পয়মন্ত ভেন্যুতে স্বাগতিকদের ভালো ক্রিকেট উপহার দেওয়ার প্রত্যাশা।

আজ তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচটি জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে বিকাল তিনটায়। ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করবে গাজী টেলিভিশন ও টি-স্পোর্টস।

ওয়ানডে ফরম্যাটে শক্তিশালী বাংলাদেশ ইংল্যান্ডের কাছে পাত্তাই পায়নি। মিরপুরে টানা দুই ম্যাচ হেরে সিরিজ খুঁইয়ে চট্টগ্রামে পা রাখে তামিম ইকবালরা। শেষ ম্যাচে সাকিবের অলরাউন্ড পারফরম্যান্সে স্বস্তির জয় এলেও সাত বছর পর ঘরের মাঠে সিরিজ হারের দাগ লেগে গেছে। ওয়ানডে সিরিজ শেষে এখন বাংলাদেশের সামনে টি-টোয়েন্টি চ্যালেঞ্জ। ইংল্যান্ড শুধু ওয়ানডে ক্রিকেটেরই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন নয়, টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটেরও বিশ্বচ্যাম্পিয়ন। তাছাড়া এই ফরম্যাটে বিশ্বের পরাশক্তিও বটে।  ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে ইংলিশরা কতটা শক্তিশালী সেটা পরিসংখ্যানে চোখ রাখলেই বোঝা যাবে। শেষ ১০টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে কেবলমাত্র একবার হারের স্বাদ পেয়েছে ইংল্যান্ড। অন্যদিকে সর্বশেষ দশ টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের জয় মোটে তিনটি। সেগুলো আবার আরব আমিরাত, নেদারল্যান্ড ও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। পাকিস্তান, ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকা ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ খেললেও জিততে পারেনি।

বাংলাদেশ দল এখন পর্যন্ত ১৪৪টি টি-টোয়েন্টি খেলেছে। যার মধ্যে ম্যাচ জিতেছে ৪৯টি, হেরেছে ৯২টিতে। ৩টিতে ফল হয়নি। ১৪৪ ম্যাচের মধ্যে মাত্র একটি ম্যাচ খেলেছে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। ওই একটি ম্যাচে আবার বিন্দুমাত্র প্রতিরোধও গড়তে পারেনি। ম্যাচটি বাংলাদেশ ভুলে যেতেই চাইবে। ২০২১ বিশ্বকাপে আবুধাবিতে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে বাংলাদেশ আগে ব্যাট করে মাত্র ১২৪ রান করেছিল। সহজ সেই লক্ষ্য ৩৫ বল হাতে রেখে মাত্র ২ উইকেট হারিয়েই ইংল্যান্ড ছুঁয়ে ফেলেছিল।

একমাত্র ম্যাচটি আইসিসি ইভেন্টের হলেও এবার প্রথমবারের মতো ইংলিশদের বিপক্ষে দ্বি-পাক্ষিক সিরিজে মুখোমুখি হচ্ছে। হোম কন্ডিশনে ম্যাচ বলে বাংলাদেশ কিছুটা আত্মবিশ্বাসী। যদিও জয়ের কথা মুখে স্বীকার করেননি দলের প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, ‘আমি জাদুকর নই। ভবিষ্যতের চিত্র তুলে ধরার মতোও কেউ নই। তবে আমরা জেতার জন্য চেষ্টা করবো।’

হাথুরুসিংহে মুখে চেষ্টার কথা বললেও আসলে জয়ের চিন্তা থেকেই হোম কন্ডিশনের পুরো সুবিধা বাংলাদেশ কাজে লাগাতে চাইছে। তাইতো সাগরিকায় স্লো উইকেটের ফাঁদ পাতা হয়েছে। ক্রিস ওকস সে কথাই জানিয়ে গেছেন, ‘আমি অনুমান করছি এটা তুলনামূলক আরও মন্থর হবে। খেলা আগেই শুরু হবে, শিশিরের কোন সমস্যা থাকবে না। কাজেই মন্থর থাকবে উইকেট। আমার ধারণা এবং নিশ্চিত স্পিন ধরবে, স্পিনার ও স্লো বোলারদের বল থেমে আসবে। একজন পেস বোলার বা সিম বোলার হিসেবে আপনাকে বৈচিত্র্য ব্যবহার করতে হবে। হ্যাঁ, পিচটা এরকমই।’

তামিম, মুশফিক ও মাহমুদউল্লাহর মতো সিনিয়র ক্রিকেটারদের ছাড়া ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশ মাঠে নামবে। তবে সিনিয়র তিন ক্রিকেটার না থাকলেও সাম্প্রতিক সময়ে দারুণ ক্রিকেট খেলা বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার টি-টোয়েন্টি দলে সুযোগ পেয়েছেন। সর্বশেষ বিপিএলে রনি তালুকদার, শামীম হোসেন, রেজাউর রহমান রাজা ও তানভীর আহমেদ দারুণ পারফর্ম করে টি-টোয়েন্টি দলে জায়গা করে নিয়েছেন। এর মধ্যে ৮ বছর আগে জাতীয় দলে অভিষেক করা রনি তালুকদার বিপিএলে দুর্দান্ত পারফর্ম করে ফিরেছেন। দলে তিন সিনিয়র না থাকায় কোন প্রভাব পড়বে বলে মনে করেন না হাথুরুসিংহে, ‘টিম স্পিরিট খুব ভালো। সিনিয়র নাকি জুনিয়র তা কোনও বিষয় নয়।’

ঘরোয়া ক্রিকেটে পারফর্ম করে জাতীয় দলে সুযোগ পাওয়া এই ক্রিকেটারদের কাছ থেকে পারফরম্যান্স প্রত্যাশা করেন হাথুরুসিংহে। ৮ বছর পর রনির পারফরম্যান্স মূল্যায়ন করার প্রশ্নে প্রধান কোচ বলেছেন, ‘ওদের ম্যাচ দেখার অপেক্ষায় আছি। ম্যাচ পরিস্থিতিতে দেখতে চাই। কারণ, ওদেরকে স্রেফ নেটে দেখেছি। রনিকে আগেও দেখেছি। আমার মনে আছে, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সে একটি ম্যাচে খেলেছিল। এরপর চোটে পড়েছিল নাকি অন্যরা চলে আসায় সুযোগ পায়নি, তা মনে নেই। তবে ওরা কী করতে পারে, তা দেখার জন্য অনেক আগ্রহ নিয়ে তাকিয়ে আছি। ওরা ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো করেছে। এখন ওদের সুযোগ এগিয়ে আসার (এই পর্যায়ে)।’

বেশ কিছু চমক নিয়ে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা করা হয়েছিল। গত বছর অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে সর্বশেষ সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটের ম্যাচ খেলেছিল বাংলাদেশ। প্রায় ৪ মাস পর বৃহস্পতিবার কুড়ি ওভারের ম্যাচ খেলতে নামবে সাকিব আল হাসানের দল। পুরো স্কোয়াডেই যেহেতু অনেক পরিবর্তন, স্বাভাবিক ভাবে একাদশেও পরিবর্তন নিশ্চিত। রংপুর রাইডার্সের হয়ে বিপিএল মাতানো রনি তালুকদার ও সিলেট স্ট্রাইকার্সের হয়ে ছন্দময় ব্যাটিং করা তৌহিদ হৃদয়ের একাদশে সুযোগ পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। রনি ২০১৫ সালে একটি টি-টোয়েন্টি খেললেও হৃদয়ের অভিষেক হবে। তাছাড়া অভিজ্ঞ নাসুম আহমেদকে টপকে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের হয়ে দারুণ খেলা তানভীর ইসলামের সুযোগ পাওয়ার সম্ভাবনা জোরালো। দুই পেসার হলে মোস্তাফিজ ও তাসকিনকে একাদশে বিবেচনা করা হবে। তৃতীয় পেসার নিলে হাসান মাহমুদ কিংবা রেজাউর রহমান রাজার মধ্য থেকে একজনকে বেছে নেবে টিম ম্যানেজমেন্ট।

স্কোয়াডে থাকা নতুন ক্রিকেটারদের নিয়ে কিছুটা শঙ্কিত ইংলিশ শিবির। নতুনদের নিয়ে ইংলিশ পেসার ক্রিস ওকস বলেছেন, ‘নতুন যারা এসেছেন তাদের আমরা আগে দেখিনি। তারা ঘরোয়া টুর্নামেন্টে ভালো পারফর্ম করেছেন। অনেক আত্মবিশ্বাস নিয়েই তারা এই মঞ্চে এসেছেন। তাদের বিপক্ষে খেলাটা মোটেও সহজ হবে না। এটা কোন অজুহাত নয়। আমাদেরকে চতুর হতে হবে, যে কোন সুযোগ লুফে নিতে হবে।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

ষোড়শ এশিয়া কাপের পর্দা উঠছে আজ
হোয়াইটওয়াশ এড়াতে আজ মাঠে নামছে বাংলাদেশ
ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা তামিমের
হঠাৎ সংবাদ সম্মেলনের ডাক তামিমের, আসতে পারে বড় ঘোষণা
আফগানদের বিপক্ষে বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ
ফাইনালে ভারতের সঙ্গে পারল না বাংলাদেশের মেয়েরা

আরও খবর