Header Border

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (গ্রীষ্মকাল) ৩৩.৯৬°সে

ডোনাল্ড ট্রাম্প পরাজয় স্বীকার না করে বিব্রতকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছেন -জো বাইডেন

সময় সংবাদ লাইভ রিপোর্টঃ যুক্তরাষ্ট্রের সদ্য-নির্বাচিত এই প্রেসিডেন্ট বলেছেন, কোনো কিছুই ক্ষমতা হস্তান্তরকে থামিয়ে রাখতে পারবে না।মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পর, দিন যতই যাচ্ছে ততই জটিল হয়ে উঠছে ক্ষমতা হস্তান্তর। এখনও পরাজয় স্বীকার না করার অবস্থানে অনড় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এদিকে নির্বাচনে নিজের পরাজয় স্বীকার না করে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প একটি ‘বিব্রতকর’ পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছেন বলে মন্তব্য করেছেন জো বাইডেন।
ট্রাম্প ইতোমধ্যে টুইট করে বলেছেন, শেষ পর্যন্ত তিনিই জয় পাবেন। বিবিসি বলছে, প্রতি চার বছর পর যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যম যেভাবে নির্বাচনে কে বিজয়ী হতে যাচ্ছেন তা তুলে ধরে সেভাবে এবারও দেশটির সবগুলো প্রধান টেলিভিশন নেটওয়ার্ক ট্রাম্পের পরাজয়ের বিষয়ে পূর্বাভাস দিয়েছে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প পরাজয় মেনে নিতে অস্বীকারের বিষয়ে বাইডেন কী ভাবছেন, একজন সাংবাদিকের এমন প্রশ্নের জবাবে বাইডেন বলেন, খোলাখুলি বললে, এটিকে আমি বিব্রতকর বলে মনে করি। এটি প্রেসিডেন্টের উত্তরাধিকারকে সাহায্য করবে না। ২০ জানুয়ারি এসব শেষ হবে। ২০ জানুয়ারি, ২০২১ যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হিসেবে জো বাইডেনের অভিষেক হওয়ার কথা রয়েছে।
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের রাজ্য পর্যায়ের ফল সরকারিভাবে ঘোষিত হয়নি, বেশ কয়েকটি জায়গায় ভোট গণনা এখনও চলছে। এই রাজ্যগুলোর ফল নির্ধারিত হওয়ার পর ১৪ ডিসেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের ইলেকটোরাল কলেজের বৈঠকে নির্বাচনের চূড়ান্ত ফল ঘোষিত হবে।
হোয়াইট হাউসের ওভাল দপ্তরের দায়িত্ব নেয়ার জন্য প্রস্তুতি নিতে থাকা বাইডেনকে বিদেশী রাষ্ট্রগুলোর নেতারা ফোন করে অভিনন্দন জানাচ্ছেন। গত মঙ্গলবার তিনি যাদের সঙ্গে কথা বলেছেন তাদের মধ্যে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন, আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী মিকেল মার্টিন, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ ও জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মের্কেল অন্যতম। এ প্রসঙ্গে বাইডেন বলেছেন, আমি তাদের জানিয়েছি, আমেরিকা ফিরে আসছে। আমরা আবার খেলায় ফিরে আসছি।
এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পর, দিন যতই যাচ্ছে ততই জটিল হয়ে উঠছে ক্ষমতা হস্তান্তর। এখনও পরাজয় স্বীকার না করার অবস্থানে অনড় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। নব নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলছেন, বিশ বছর আগের ঘটনা স্মরণ করছেন যুক্তরাষ্ট্রের মানুষ। ২০০০ সালে হোয়াইট হাউস কার দখলে যাবে তার সিদ্ধান্ত হয়েছিল সুপ্রিম কোর্টে। কিন্তু সেবারও আল গোর পরাজয় মেনে নিয়েছিলেন। এরপর বুশ পরাজয় স্বীকার করেন ক্লিনটনের কাছে।
২০১৬ সালে নির্বাচনের পরদিন সকালে বিজয়ী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অভিনন্দন জানিয়েছিলেন পরাজিত প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন। মাত্র কয়েক ঘণ্টা দেরিতে পরাজয় স্বীকার করে নেয়ার জন্য দুঃখ প্রকাশও করেছিলেন। প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা হোয়াইট হাউসে দাওয়াত করেছিলেন ট্রাম্পকে। কিন্তু ব্যতিক্রম ডোনাল্ড ট্রাম্প।
এদিকে, ট্রাম্প প্রশাসনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও পরাজয় স্বীকার করে নিতে রাজী নন। তিনি বলেন, আমি মনে করি, দ্বিতীয়বারের মতো প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সরকার গঠনের প্রক্রিয়াটি সহজ ও মসৃণ হবে।
এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচন নিয়ে রাজ্য সরকারের নির্বাচনী কর্তৃপক্ষ কোনো বড় ধরনের জালিয়াতি ও কারচুপির প্রমাণ পায়নি। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচনের এক সপ্তাহ পরেও ফল মেনে নেয়ার কোনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেননি। তাঁর অভিযোগ, নির্বাচনে কারচুপি হয়েছে। ভুয়া ভোট গণনা করে তাঁকে পরাজিত করা হয়েছে।
প্রভাবশালী মার্কিন পত্রিকা দ্য নিউইয়র্ক টাইমস বলছে, তারা ৪৫টি রাজ্যের নির্বাচন অফিসের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে। কোনো রাজ্যই বড় ধরনের কোনো কারচুপির কথা জানাতে পারেনি। নিউইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মিনেসোটার সেক্রেটারি অব স্টেট স্টিভেন সাইমন জানিয়েছেন, তাঁদের রাজ্যে একজন মানুষও ভোটের গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে কোনো বিতর্কে যাননি। কোথাও কোনো জালিয়াতি হয়নি
যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিটি রাজ্যের নির্বাচন রাজ্য সরকারের নির্বাচন অফিস পরিচালনা করে। এসব নির্বাচনী অফিস স্বাধীনভাবে কাজ করে। রাজ্যের সেক্রেটারি অব স্টেট নির্বাচনী ফল প্রকাশের দায়িত্বে থাকেন।  রাজনৈতিক বিতর্ক থাকলেও যুক্তরাষ্ট্রের জনগণ নির্বাচনী অফিসের প্রাতিষ্ঠানিক গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে কখনো সন্দেহ প্রকাশ করে না। সবাই বিশ্বাস করে, এসব প্রতিষ্ঠান আইন অনুযায়ী কাজ করে। এখানে কারও পক্ষপাত হওয়ার কোনো সুযোগ নেই।
এদিকে ডোনাল্ড ট্রাম্প মেনে না নিলেও যুক্তরাষ্ট্রের শতকরা ৮০ ভাগ মানুষ মনে করেন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন বিজয়ী হয়েছেন। শুধু তাই নয় পরাজিত প্রার্থী বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের রিপাবলিকান পার্টির অর্ধেকের বেশি সমর্থকও একই মত পোষণ করেন। রয়টার্স/ইপসসের এক জরিপে এ তথ্য উঠ এসেছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের বরাতে এ খবর প্রকাশ করেছে ব্রিটেনের প্রভাবশালী টেলিগ্রাফ, ডেইলি মেইল, সানসহ বিভিন্ন পত্রিকা। গত শনিবার দুপুর থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত চালানো এই জরিপে দেখা যায়, ৭৯ শতাংশ প্রাপ্তবয়স্ক আমেরিকান মনে করেন জো বাইডেন হোয়াইট হাউজ জয় করেছেন। অন্য ১৩ শতাংশ মনে করেন, নির্বাচন এখনো শেষ হয়ে যায়নি। ৩ শতাংশ মনে করেন ট্রাম্প জিতেছেন। ৫ শতাংশ বলেন, তারা জানেন না।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

দুবাইয়ে গোপন সম্পদের পাহাড়, তালিকায় ৩৯৪ বাংলাদেশি
থাইল্যান্ড গেলেন প্রধানমন্ত্রী
ইরানি পরমাণু স্থাপনায় হামলা চালাবে ইসরাইল !
‘পৃথিবীর কোনো শক্তিই আমাদের বিরত রাখতে পারবে না’-নেতানিয়াহু
বাংলাদেশী নাবিকদের হত্যার হুমকির জলদস্যুদের
রমজানে গাজায় ত্রাণ পাঠাল বাংলাদেশ

আরও খবর