Header Border

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (বর্ষাকাল) ২৯.৯৬°সে

বাক স্বাধীনতার নামে কোন জাতির ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ার অধিকার কারো নেই, ফ্রান্স সরকার ক্ষমা না চাইলে আন্দোলনের দাবানল থামবে না

সময় সংবাদ লাইভ রিপোর্টঃ ফ্রান্সে মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্নস্থানে বিক্ষোভ প্রতিবাদ অব্যাহত রয়েছে। এ ছাড়াও বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে বিবৃতির মাধ্যমে প্রতিবাদ জানানো হচ্ছে। শুক্রবার বাদ জুমা রাজধানীতে ফ্রান্স বিরোধী সমাবেশে বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের আমীর মাওলানা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী বলেছেন, ফ্রান্স সরকার মুহাম্মদ সা, এর ব্যঙ্গচিত্র প্রচার করে বিশ্বের সকল মুসলমানের অন্তরে আঘাত করেছে। বাক স্বাধীনতার নামে কোন জাতির ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ার অধিকার কারো নেই। ফ্রান্সে প্রকাশিত ব্যঙ্গচিত্র বিশ্ব মুসলিমের সাথে যুদ্ধ ঘোষণার শামীল। ফ্রান্সের  বিরুদ্ধে  সারা বিশ্বে প্রতিবাদের যে ঝড় উঠেছে ফ্রান্স সরকার ক্ষমা না চাইলে প্রতিবাদ আন্দোলনের দাবানল থামবে না বরং জিহাদের রূপ নিতে পারে। নবীপ্রেমিকরা ফ্রান্সের পণ্যবর্জন অব্যাহত রাখবে। ভারত সরকার ফ্রান্সের এ ধৃষ্টতা সমর্থন করায় ভারতীয় পণ্য বর্জনেরও আহবান জানান তিনি।
শুক্রবার বাদ জুমা রাজধানীর সেকশন বেড়িবাঁধে ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয়ভাবে মহানবী হযরত মুহাম্মদ সা.এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদ ও ফ্রান্সের পণ্য বর্জণের দাবিতে পুরান ঢাকা ইমাম-মুসল্লী ঐক্য পরিষদ এর উদ্যোগে বিশাল বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন। মাওলানা জুনাঈদ কাসেমীর সভাপতিত্বে ও মাওলানা সাইফুল্লাহ হাবিবীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ইসলামবাগ বড় মসজিদের খতিব মাওলানা মাঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী, লালবাগ মাদরাসার মুহাদ্দিস মুফতি সাখাওয়াত হোসেন রাজী, মাওলানা তানভির আহমদ সিদ্দিকী, মুফতি রাফি বিন মুনির, মুফতি সুলতান মহিউদ্দীন, মুফতি সোহরাব হোসেন, মাওলানা আলআমীন, মুফতি আ ফ ম আকরাম হুসাইন, মুফতি আব্দুর রহমান বেতাগী, মুফতি ফয়জুল্লাহ সাদী, মুফতি আমানুল্লাহ বসন্তপুরী, মুফতি সাইফুল্লাহ নোমানী, প্রমূখ।
সমাবেশে মাওলানা মাঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী বলেন, ফ্রান্স সরকার নবীর বিরুদ্ধে ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের মাধ্যমে বিশ্বমুসলিমকে উস্কে দিয়ে বিশ্বজুড়ে ধর্মযুদ্ধ বাধানোর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। আল্লাহ-রাসূল সা.এর বিরুদ্ধে ধৃষ্টতা দেখালে কাউকে বিনা চ্যালেঞ্জে ছেড়ে দেয়া হবে না। কেউ আমাদেরকে ইসলাম ও নবীদের নিয়ে কটূক্তি করলে আমরা শহীদ হওয়ার স্বপ্ন দেখি।
মুফতি সাখাওয়াত হোসেন রাজী বলেন, আমাদের সরকার যদি ফ্রান্স সরকারের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে বিশ্বের ২০০ কোটি মুসলমান এ সরকারের সাথে থাকবে। তিনি অবিলম্বে বাংলাদেশের জাতীয় সংসদে ফ্রান্সে মহানবী মুহাম্মদ সা.এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে নিন্দা প্রস্তাব পাশ করার দাবি জানান।
সভাপতির বক্তব্যে মাওলানা জুনাঈদ কাসেমী বলেন, কোটি কোটি মুসলমানদের প্রতিবাদই প্রমান করে মুসলমানেরা নবী মুহাম্মদ সা. কে প্রাণের চেয়েও বেশি ভালবাসে। নবীর জন্য জীবন দিতে লাখো আশেক প্রস্তুত রয়েছে। ফ্রান্স এবং তার দোসরদের শায়েস্তা করতে পণ্য বর্জনসহ প্রয়োজনে মুসলমানেরা জিহাদের ডাক দিবে ইনশাআল্লাহ।
ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ
ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর মহাসচিব হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ বলেছেন, আল্লাহ ও রাসূল সা. এর বিরুদ্ধে কটূক্তির শাস্তির আইন না থাকায় বার বার রাসূল সা.কে অবমাননা করে ফেসবুকে স্টেটাস দেয়া হচ্ছে। তাই নবীর ইজ্জত রক্ষায় ব্লাসফেমী আইন পাস করে কটূক্তিকারীদের বিচার করতে হবে। তিনি বলেন, ফ্রান্সে রাসূল সা. এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের পর বাংলাদেশেও অনেক নাস্তিক-মুরতাদ মহানবী সা. এর বিরুদ্ধে কটুক্তি করে যাচ্ছে। সেই ধারাবাহিকতায় কুমিল্লা জেলার মুরাদনগর উপজেলার বাঙ্গরা বাজার থানার কুরবানপুর গ্রামে হিন্দু শিক্ষক এবং ফ্রান্স প্রবাসী তাদের ফেসবুকে রাসূল সা.কে কটূক্তি করে এবং ফ্রান্সের সমর্থনে নবী সা. এর বিরুদ্ধে আপলোড করে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করে যাচ্ছে। জানা গেছে সেই কটূক্তিকারী দু’জনকে বাঙ্গরা থানা পুলিশ গ্রেফতার করেছে। কিন্তু আইনের ফাঁক ফোকর দিয়ে বের হওয়ার সুযোগ থাকায় কটূক্তি কোনক্রমেই কমছে না। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের লোকজন অতিমাত্রায় ইসলাম, নবী ও আল্লাহ নিয়ে বার বার কটূক্তি করে যাচ্ছে। ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার আইন না থাকায় বার বার এধরণের ঘটনা ঘটছে।
গতকাল বিকেলে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের থানা ও মহানগর যৌথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা মুহামম্দ ইমতিয়াজ আলমের সভাপতিত্বে এবং সেক্রেটারি মাওলানা এবিএম জাকারিয়ার পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন আলহাজ্ব আলতাফ হোসেন, আলহাজ্ব আনোয়ার হোসেন, আলহাজ্ব আব্দুল আইয়াল মজুমদার, ডা. শহিদুল ইসলাম, নুরুজ্জামান সরাকর, মু.হমায়ূন কবির, মাওলান আবদুর রাজ্জাক, মাওলানা নজরুল ইসলাম অধ্যাপক নাসির উদ্দিন খান প্রমুখ।  এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন আহমদ আবদুল
মাওলানা ইমতিয়াজ আলম বলেন, বিশ্ব মানবতার মুক্তির দূত মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ব্যঙ্গচিত্র কার্টুন প্রদর্শনী বন্ধ করতে হবে। ফ্রান্সে বন্ধকৃত সকল মসজিদগুলো অবিলম্বে খুলে দিতে হবে। মহানবী (সা.) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের দায়ে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁকে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে। অন্যথায় সারাবিশ্বে যে প্রতিবাদের আগুন জ্বলছে তা নিভবে না।
গোপালগঞ্জ
মহানবী (সা.) কে অবমাননার প্রতিবাদে গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীর জয়নগর বাজারে মুসলিম সমাজের ব্যানারে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। শুক্রবার সকালে এ বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করা হয়।
এসময় বক্তব্য রাখেন মহেশপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, আওয়ামী লীগ নেতা কামরুজ্জামান খান কামাল, জয়নগর মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা মুহাম্মদ ফারুকুজ্জামান মোল্লা, বীর মুক্তিযোদ্ধা জাফর মৃধা, সাংবাদিক রেজাউল করিম, তরুণ আলেম জুনায়েদ বিন জামান, জায়েদ বিন জামানসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।
রাজশাহী
ফ্রান্সে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সঃ) এর অবমাননা ও ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে শুক্রবার জু’মার নামাজের পর স্থানীয় ইমাম-ওলামা, দরবার শরীফ ভক্ত আশেকান ও তৌহিদি জনতার উদ্যোগে নগরীর রেলগেট শহীদ কামারুজ্জামান চত্তরে প্রধান সড়কে সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছেন স্থানীয় মুসল্লীগণ।
সমাবেশে ফ্রান্সের উৎপাদিত পণ্য ব্যবহার না করা ও বর্জনের আহবান জানিয়ে বক্তব্য রাখেন, হযরত মাওলানা মুফতি মো. মইনুল ইসলাম, হযরত হাফেজ মাওলানা মুহাম্মাদ আব্দুল্লাহ, শাহ ওয়াকার আহমেদ, শাহাদাত হোসেন, মাওলানা নূহ, মাওলানা রুহুল আমিন প্রমুখ।
এ সমাবেশ ও মানববন্ধনে অংশ নেন নগরীর পঞ্চবটি খাজা ইসমাইল শাহ চিশতি দরবার শরীফ, টিকাপাড়া হযরত খাজা কাশেম চিশতি নিজমী দরবার শরীফ, ভদ্রা শাহ ওলী আহমদ (রহঃ) মাজার শরীফ, ঘোড়ামারা শাহ কলন্দর দরবার শরীফ, হযরত মাতশাহ ও হযরত বোরহান উদ্দিন শাহ (রহঃ) দরবার শরীফ. দাশমারি পূর্বপাড়া দারুল হাবীব খানকাহ শরীফ’র ভক্ত আশেকানবৃন্দ।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

কর ও ভ্যাটের চাপ আরও বাড়বে
ঢাকার কাছেই চলে এসেছে সবচেয়ে বিষধর রাসেলস ভাইপার
রেলওয়ের ৭১৩ কোটি টাকার ‘গচ্চা প্রকল্প’
সন্ধ্যার মধ্যে ঝড়ের আভাস
১ মাস পর ধর্মমন্ত্রীর আইফোন উদ্ধার, গ্রেপ্তার ৯
কাটেনি রিমালের প্রভাব, আজও ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টির শঙ্কা

আরও খবর