Header Border

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (বর্ষাকাল) ৩১.৯৬°সে

বিগ ব্যাশে খেলার অনুমতি পাবেন না বাবররা

সময় সংবাদ রিপোর্ট : অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটার ডেভিড ওয়ার্নার নিজ দেশের বিগ ব্যাশ রেখে আরব আমিরাতের লিগে খেলার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। তবে এমন সুযোগ পাচ্ছে না পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা। দেশটি বোর্ড তাদের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ পিএসএলের মান রক্ষার্থে বিগ ব্যাশসহ অন্যান্য ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে বাবর আজমদের খেলার অনুমিতপত্র দেবেন না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে।আগামী মৌসুমে একাধিক দেশের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ মাঠে গড়াচ্ছে একই সময়ে। এ সময় বিদেশি ক্রিকেটারদের পাওয়া নিয়ে যেমন সংশয় রয়েছে, তেমনি শঙ্কা আছে দেশি ক্রিকেটারদেরও উপস্থিতি নিয়েও। বিশেষ করে অজি ব্যাটার ডেভিড ওয়ার্নার যখন নিজ দেশের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ বিগ ব্যাশের ওপর আরব আমিরাতের লিগকে ঠাঁই দিলেন, তখন চিন্তায় পড়ে গেছে অন্য ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের আয়োজকরা। অর্থের ছড়াছড়ির এ খেলায় স্বাভাবিকভাবে ক্রিকেটাররা যেখানে বেশি অর্থ পাবেন সে লিগটাকেই বেছে নেবেন।কিন্তু ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার মতো অন্য দেশের ক্রিকেটারদের এমন স্বাধীনতা দিচ্ছে না অন্য দেশের বোর্ডগুলো। কিছুদিন আগে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন জানিয়েছিলেন, বিপিএল চলাকালে অন্য ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের খেলার সুযোগ নেই বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের। কারণ অন্য সব ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের ভিড়ে বিদেশি ক্রিকেটার পাওয়া নিয়ে যেখানে দেখা দিয়েছে সংশয়, সেখানে দেশি ক্রিকেটাররা না থাকলে মান নিয়ে প্রশ্ন উঠতে পারে লিগের।

তবে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) আরও একধাপ এগিয়ে এক্ষেত্রে। দেশটির ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ পিএসএল শুরু হওয়ার প্রায় মাস আগে শুরু হবে বিশ্বের অন্যতম জাঁকজমকপূর্ণ ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ বিগ ব্যাশ। ২০২২ সালের ১৩ ডিসেম্বর মাঠে গড়াবে লিগটির প্রথম ম্যাচ। ২০২৩ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি ফাইনালের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে আসরের। অন্যদিকে আগামী বছরের ২৭ জানুয়ারি শুরু হয়ে ২৭ ফেব্রুয়ারি শেষ হবে পিএসএলের। কয়েক ম্যাচের হিসেব বাদ দিলে, দুই লিগেই খেলতে পারে পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা। তারপরও বাবর আজমদের বিগ ব্যাশে খেলার জন্য অনুমতিপত্র দেবে না দেশটির বোর্ড। বিষয়টি মঙ্গলবার (০২ আগস্ট) নিশ্চিত করেছে ক্রিকেটের জনপ্রিয় সাইট ‘ইএসপিএনক্রিকইনফো’।মূলত বিগ ব্যাশে খেলার কারণে যেন পিএসএল খেলতে ধকলে না পড়তে হয়, সে জন্যই এমন সিদ্ধান্ত পিসিবির। শুধু বিগ ব্যাশ নয়, রাতারাতি কোটিপতি বনে যাওয়ার মতো লিগ, আরব আমিরাত টি-টোয়েন্টি লিগেও খেলার সুযোগ পাবেন না বাবর আজমরা। অথচ এ লিগটাতে সবচেয়ে বেশি চাহিদা ছিল পাকিস্তানি ক্রিকেটারদেরই। অন্যদিকে বাবররা গত বছর পিএসএলের কারণে অংশ নেননি বিপিএলে। আগামী ৫ জানুয়ারি শুরু হয়ে নবম বিপিএল আসর শেষ হবে ৬ ফেব্রুয়ারি। কাছাকাছি সূচির কারণে এবারও পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের পাবে না বাংলাদেশের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ সেটা অনেকটাই নিশ্চিত।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

হজে গিয়ে ১০ বাংলাদেশির মৃত্যু
কর ও ভ্যাটের চাপ আরও বাড়বে
ইসরাইলের সামরিক ঘাঁটিতে ভয়াবহ ড্রোন হামলা হিজবুল্লাহর
ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি দিতে সব দেশের প্রতি আহ্বান জাতিসংঘের
মোদি না রাহুল, কে হচ্ছেন ভারতের কান্ডারি?
ঢাকার কাছেই চলে এসেছে সবচেয়ে বিষধর রাসেলস ভাইপার

আরও খবর