Header Border

ঢাকা, বুধবার, ২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (গ্রীষ্মকাল) ৩১.৯৬°সে

মিথ্যা অপপ্রচার চালিয়ে দেশ-বিদেশে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করছে বিএনপি — প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

সময় সংবাদ লাইভ রিপোর্টঃ আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অভিযোগ করে বলেছেন,‘বিভিন্ন উপনির্বাচনে তারা প্রার্থী দেয়। নির্বাচনের আগে খুব হইচই করে। যেদিন নির্বাচন সেদিনে দুপুরে পরাজয়ের ভয়ে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেয়। মূলত নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতেই তারা এমন করে।’

তিনি বলেন, বিএনপি মিথ্যা অপপ্রচার চালিয়ে শুধু দেশে নয়, বিদেশেও দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করছে ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের সম্পাদকমণ্ডলীর সভায় তিনি এ সব কথা বলেন। আওয়ামী লীগ সভাপতি গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে সভায় বক্তব্য রাখেন। তার আগে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের সভাপতিত্বে সম্পাদকমণ্ডলীর সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, এস এম কামাল হোসেন, মির্জা আজম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, শ্রম সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক সেলিম মাহমুদ, অর্থ সম্পাদক ওয়াসিকা আয়েশা খান, স্বাস্থ্য সম্পাদক রোকেয়া সুলতানা, আন্তর্জাতিক সম্পাদক শাম্মী আহমেদ, বন ও পরিবেশ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, শিল্প ও বাণিজ্য সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান, উপদফতর সম্পাদক সায়েম খানসহ অনেকে।

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দলের নেতাকর্মীদের তার বয়সের বিষয়টি স্মরণ করিয়ে দিয়ে বলেছেন,‘আমি আবারও বলব, চিরদিন কেউ বেঁচে থাকে না। আমিও থাকব না। কারণ আমারও তো বয়স হয়ে গেছে। ৭৪ বছর পার হয়ে গেছে, এটি মনে রাখতে হবে; এই বয়স অনেক বেশি।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আওয়ামী লীগকে একটা আদর্শ নিয়ে চলতে হবে। সংগঠনগুলোকে এটি চিন্তা করতে হবে, আমাদের একটা দায়িত্ব আছে এ দেশের মানুষের প্রতি। আমাদের আওয়ামী লীগ যেমন বাংলাদেশের জনগণের জন্য দায়িত্ব; ঠিক সেই সঙ্গে আমাদের ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ যুবলীগ, কৃষক লীগ, শ্রমিক লীগসহ সবাইকে আমি বলব, সকলের কিন্তু নিজ নিজ জায়গায় নিজ নিজ এলাকাকেন্দ্রিক দেখভালের দায়িত্ব আছে। সেই দায়িত্বটাও পালন করতে হবে এবং সংগঠন আর জাতির পিতার চেতনাটাকে ধারণ করতে হবে।

বাংলাদেশের মানুষের গড় আয়ু বৃদ্ধির প্রসঙ্গ উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘বাংলাদেশের মানুষের লংজিভিটি আমরা বাড়িয়ে ৭২ বছরে এনেছি। তারপরও তার থেকে বেশিই আছে। তারপরও প্রস্তুত থাকতে হবে। কারণ জন্মালে তো মরতেই হবে, এটি ঠিক। কিন্তু সংগঠনটাকে তো আমি চেষ্টা করেছি, আমার মতো গুছিয়ে দিতে। সেই ক্ষেত্রে আমি বলব যে, আমাদের সহযোগী সংগঠন যে কয়টা আছে, খুব দ্রুত একেবারে তূণমূল পর্যায় থেকে আপনাদের সম্মেলনগুলো করতে হবে।’

সম্মেলন হয়ে যাওয়া জেলা কমিটিগুলো পূর্ণাঙ্গ করার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘কিছু সম্মেলন হয়ে গেছে, করোনার জন্য আমরা করে দিতে পারিনি। সেই কমিটিগুলো করতে হবে। কমিটিটা হয়ে গেলে পরে তখন কিন্তু অনেক কাজ সহজ হয়।’

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমরা প্রায় এক হাজার কোটি টাকা দিয়ে করোনার ভ্যাকসিন বুকড করে ফেলেছি। যখনই এটা কার্যকর হবে, তখনই যেন বাংলাদেশের মানুষ পায়- সেই ব্যবস্থা নিয়েছি এবং সেটা চলমান থাকবে।

জাতির পিতার আদর্শের কথার বিষয়টি স্মরণ করিয়ে দিয়ে বঙ্গবন্ধুকন্যা বলেন, ‘কত মানুষই তো অর্থ-সম্পদ বানিয়েছেন। একটা সময় ছিল, যখন একটা হাঁচি দিলেও বিদেশে চলে যেত ট্রিটমেন্ট করতে। অথচ এখন এমন এক ভাইরাস আসলো, যখন কারও কারও জন্য সেই সময়ও পাওয়া যাচ্ছে না। আমার তো মনে হয়, এটা এসেছে আল্লাহর তরফ থেকে মানুষকে শিক্ষা দেয়ার জন্য। কাজেই ধন-সম্পদ, টাকা-পয়সা এগুলোর কোনো মূল্যই নেই। সেই শিক্ষাটাই কিন্তু পাওয়া যায়।’

করোনা মোকাবিলায় সরকারের নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, ‘করোনাভাইরাসে যখন সারাবিশ্ব স্থবির; যখন অনেক উন্নত দেশ এটাকে সামাল দিতে পারছে না, তখনও বাংলোদেশের অর্থনীতি কিন্তু আমরা থেমে যেতে দিইনি। এটা কেন পেরেছি? আমি জানি, বিপদ আসলে নার্ভাস হয়ে যেতে নেই। বিপদটাকে কীভাবে মোকাবিলা করব সে দিকেই লক্ষ্য রাখতে হবে, আর সেভাবেই পদক্ষেপ নিতে হবে। আমরা সেই কাজটিই করছি।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘যখন আমরা দেখলাম এরকম একটা জিনিস আসতে পারে, তখন আমরা আগাম বাজেট করি। আমরা জানি যে, আমাদের সামনে আরও একটি ধাক্কা আসছে। ইতোমধ্যে অনেকেই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এবং সেটা ছড়াচ্ছে। তাই সবাইকে একটু স্বাস্থ্য-সুরক্ষা বিধি মেনে চলতে হবে। ভ্যাকসিনটা এখন আবিষ্কার হচ্ছে। সেটা নিয়ে পরীক্ষা হচ্ছে, গবেষণা হচ্ছে। আমরা প্রায় এক হাজার কোটি টাকা দিয়ে ভ্যাকসিন বুকড করে ফেলেছি। যখনই এটা কার্যকর হবে, তখনই যেন বাংলাদেশের মানুষ পায়- আমরা সেই ব্যবস্থা নিয়েছি এবং সেটা চলমান থাকবে।

সমালোচকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘সমালোচনা হলে ভালো এতে সরকারের কার্যক্রমের ভালোমন্দ আমরা বুঝতে পারি। কিন্তু অপপ্রচার কেন? সমালোচনায় আমাদের আপত্তি নেই, ভালো কাজ করলে সেটা একটু স্বীকার করিয়েন।’

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, ‘আপনারা যা ইচ্ছা লিখতে পারেন, এতে হয়তো পত্রিকার কাটতি বাড়বে। হয়তো এনজিওর জন্য বিদেশী ফান্ড আসবে। কিন্তু এই ফান্ড কোথায় যায়? ভবিষ্যতে এটার হিসাব নেয়া শুরু করব।’

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

ভয়ংকর রূপ নিচ্ছে ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’, আঘাত হানতে পারে ২৬ মে
শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ
যেভাবে হজ পালন করবেন
দুবাইয়ে গোপন সম্পদের পাহাড়, তালিকায় ৩৯৪ বাংলাদেশি
সড়কে মৃত্যুর মিছিল:দশ বছরে প্রাণহানি ৭৮ হাজার,দায় নিচ্ছে না কেউ
প্রথম ধাপে উপজেলা চেয়ারম্যান হলেন যারা

আরও খবর