Header Border

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (বর্ষাকাল) ২৮.৯৬°সে

লড়াই করে শেষ ওভারে হারল বাংলাদেশ

সময় সংবাদ রিপোর্ট : ত্রিদেশীয় সিরিজে নিজেদের চতুর্থ ও শেষ ম্যাচে পাকিস্তানের বিপক্ষে লড়াই করে শেষ পর্যন্ত ৭ উইকেটে হেরেছে বাংলাদেশ। টাইগাররা আগেই এই সিরিজে বিদায় নিয়েছিল। ফলে এই ম্যাচটি নিয়মরক্ষার ছিল। তবে আসরে কোনো ম্যাচ জিততে না পারা বাংলাদেশ এদিন ব্যাটিংয়ে বেশ উন্নতি দেখায়।

আজ বৃহস্পতিবার ক্রাইস্টচার্চে বাংলাদেশ সময় সকাল ৮টায় খেলা শুরু হয়। যেখানে প্রথমে ব্যাটিং করা বাংলাদেশ লিটন দাস ও সাকিব আল হাসানের হাফসেঞ্চুরিতে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৭৩ রান করে। জবাবে ইনিংসের ১ বল বাকি থাকতে ৩ উইকেট হারিয়ে ১৭৭ করে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় পাকিস্তান।

বাংলাদেশের দেওয়া ১৭৪ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে বিনা উইকেটে শতক পার করে পাকিস্তান। অবশেষে দলীয় ১৩তম ওভারে হাসান মাহমুদ জুটি ভেঙে জোড়া শিকার করেন। ৪০ বলে ৫৫ রান করা পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজমকে মোসাদ্দেক হোসেনের ক্যাচে ফেরানোর এক বল পর হায়দার আলীকে শূন্য রানে বোল্ড করেন।

১৯তম ওভারে মোহাম্মদ রিজওয়ানকে ফেরান সৌম্য সরকার। ৫৬ বলে ৪টি চারে ৬৯ রান করেন টি-টোয়েন্টির শীর্ষ এই ব্যাটার। তবে শেষ দিকে এসে ঝড় তোলেন মোহাম্মদ নওয়াজ। তিনি ২০ বলে ৫টি চার ও একটি ছক্কায় ৪৫ রানে অপরাজিত থাকেন।বাংলাদেশ বোলার হাসান ২টি ও সৌম্য সরকার একটি উইকেট নেন।

টস জিতে এর আগে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নামা বাংলাদেশ ইনিংসের শুরুতেই সৌম্য সরকারকে হারায়। দলীয় তৃতীয় ওভারে নাসিম শাহর বলে ব্যক্তিগত ৪ রানে ফেরেন সৌম্য। আরেক ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্ত পাওয়ার প্লের শেষ ওভারে বিদায় নেন। শুরু থেকেই উইকেটে ধুঁকতে থাকা এই বাঁহাতি মোহাম্মদ ওয়াসিমের বলে ব্যক্তিগত ১২ রানে ফেরেন।

বাংলাদেশ ১৩তম ওভারে দলীয় শতকের দেখা পায়। তারপরই টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের সপ্তম হাফসেঞ্চুরি করেন লিটন দাস। দারুণ ইনিংস খেলে বিদায় নেন লিটন। ৪২ বলে ৬টি চার ও ২টি ছক্কায় ৬৯ রান করে মোহাম্মদ নওয়াজের বলে আউট হন তিনি।

তবে দায়িত্ব কাঁধে নিয়ে ব্যাট করে যান অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের ১২তম ফিফটির দেখা পান তিনি। তিনি আগের ম্যাচেও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হাফসেঞ্চুরি করেছিলেন। পরে দলীয় ১৯তম ওভারে নাসিম শাহর বলে আউট হন সাকিব। ৪২ বলে ৭টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৬৮ রান করেন দলনেতা।

শেষ দিকে দ্রুত ইয়াসির আলী ও আফিফ হোসেন বিদায় নেন। ওয়াসিমের বলে ইয়াসির ও রান আউট হয়ে ফেরেন আফিফ।

পাকিস্তান বোলার নাসিম শাহ ও মোহাম্মদ ওয়াসিম দুটি করে উইকেট নেন।

আগামীকাল একই ভেন্যুতে ফাইনাল খেলবে নিউজিল্যান্ড ও পাকিস্তান।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

হজে গিয়ে ১০ বাংলাদেশির মৃত্যু
কর ও ভ্যাটের চাপ আরও বাড়বে
ইসরাইলের সামরিক ঘাঁটিতে ভয়াবহ ড্রোন হামলা হিজবুল্লাহর
ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি দিতে সব দেশের প্রতি আহ্বান জাতিসংঘের
মোদি না রাহুল, কে হচ্ছেন ভারতের কান্ডারি?
ঢাকার কাছেই চলে এসেছে সবচেয়ে বিষধর রাসেলস ভাইপার

আরও খবর