Header Border

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (বর্ষাকাল) ২৯.৯৬°সে

৪০ শতাংশের ওপরে ভোট পড়তে পারে

সময় সংবাদ রিপোর্টঃ  নির্বাচন কমিশনার রাশেদা সুলতানা জানিয়েছেন, রাজশাহী ও সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ৪০ শতাংশের ওপরে ভোট পড়তে পারে। এ বিষয়ে তিনি বলেন, এই দুই সিটি নির্বাচনে অনিয়মের কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। এখন পর্যন্ত সুষ্ঠু পরিবেশে চলছে ভোটগ্রহণ। কোথাও কোনো দুর্ঘটনা ঘটেনি। ৪০ শতাংশের ওপরে ভোট পড়তে পারে।

বুধবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ে ভোট পরিস্থিতি মনিটরিংয়ের সময় সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।রাশেদা সুলতানা বলেন, নির্বাচন কমিশনের মনিটরিং সেল থেকে কোনো অনিয়ম বা বিশৃঙ্খলার কোনো তথ্য পাই নাই। মাঠে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে যোগাযোগ হচ্ছে। এ পর্যন্ত আমাদের কাছে অনিয়মের তথ্য নাই।

তিনি বলেন, ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) জটিলতা সংক্রান্ত কোনো খবরও আসেনি। শুরুতে শুধু রাজশাহীর একটা জায়গায় একটু সমস্যা হয়েছিল। সেটা সঙ্গে সঙ্গে সমাধান করা হয়েছে। ইভিএমে যদি কোনো ত্রুটি দেখা দেয়, তাহলে আপনারা জানেন যে, আমাদের ব্যাকআপ মেশিন আছে, কারিগরি টিম আছে। যদি কোনো সমস্যা হয়, আমরা সঙ্গে সঙ্গেই সেটা দূর করার চেষ্টা করব।

সামগ্রিকভাবে ভোটার উপস্থিতি বেশ ভালো জানিয়ে নির্বাচন কমিশনার বলেন, রাজশাহীতে বৃষ্টি শুরু হয়েছিল। এখন বৃষ্টির গতিটা কম। বৃষ্টি হলেও ভোট বন্ধ ছিল না। সিলেটের কোনো কোনো কেন্দ্রে গত কয়েকদিন ধরে একটানা বৃষ্টি হচ্ছে। তাই দুই-একটা কেন্দ্রে ভোটার একটু কম, আর সব জায়গায় ভালো। রাজশাহীতে তো খুবই ভালো। ভোটাররা উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিচ্ছে। ৪ ঘণ্টায় ২০ শতাংশের মতো ভোট পড়েছে। ২ সিটিতে সব মিলিয়ে ৪০ শতাংশ ভোট পড়তে পারে। ধারণা থেকে বলছি, এটি নিশ্চিত কোনো বিষয় নয়।

প্রার্থীদের এজেন্ট বের করে দেয়ার অভিযোগের বিষয়ে তিনি বলেন, এজেন্ট বের করে দেয়ার তথ্য আমাদের কাছে নেই। অভিযোগ পেলে নিশ্চয়ই ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নির্বাচন কমিশন মিলনায়তনে অস্থায়ী কন্ট্রোল রুমে সকাল ছয়টা থেকে সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে একসঙ্গে দুই সিটি নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। সকাল থেকেই নির্বাচন কমিশনার মো. আহসান হাবিব খান, মো. আলমগীর ও রাশিদা সুলতানা কন্ট্রোল রুমে উপস্থিত থেকে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করছেন।

ইসি জানায়, রাজশাহী সিটি করপোরেশনে মোট ৩০টি ওয়ার্ডে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ১৫৫। ভোটকক্ষ রয়েছে ১ হাজার ১৫৩টি। ১ হাজার ৪৬৩টি ক্যামেরার মাধ্যমে রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচন মনিটরিং করা হচ্ছে ।

আর সিলেট সিটি করপোরেশনে মোট ৪২টি ওয়ার্ডে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ১৯০। ভোটকক্ষ ১ হাজার ৩৬৭টি। সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচন ১ হাজার ৭৪৭টি সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে মনিটরিং করা হচ্ছে।

উভয় সিটি করপোরেশনে ২৩টি ডিজিটাল ডিসপ্লে বোর্ডের মাধ্যমে একই সঙ্গে ৩৬৮টি সিসি ক্যামেরায় ২ হাজার ৫২০টি ভোটকক্ষ পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। প্রতি ডিসপ্লে ১০ সেকেন্ড পরপর অটো রোটেড করে এভাবে ৩৪৫টি কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। প্রতিটি ভোটকক্ষে একটি করে আর কেন্দ্রপ্রতি দুটি করে সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

হজে গিয়ে ১০ বাংলাদেশির মৃত্যু
কর ও ভ্যাটের চাপ আরও বাড়বে
ইসরাইলের সামরিক ঘাঁটিতে ভয়াবহ ড্রোন হামলা হিজবুল্লাহর
ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি দিতে সব দেশের প্রতি আহ্বান জাতিসংঘের
মোদি না রাহুল, কে হচ্ছেন ভারতের কান্ডারি?
ঢাকার কাছেই চলে এসেছে সবচেয়ে বিষধর রাসেলস ভাইপার

আরও খবর