Header Border

ঢাকা, সোমবার, ২৪শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (বর্ষাকাল) ২৮.৯৬°সে

মাঝরাতে শিপ্রার মামলা নেয়নি কক্সবাজার থানা

সময় সংবাদ লাইভ রিপোর্ট: ফেসবুকে ছবি বিকৃত করে উদ্দেশ্যমূলক পোস্ট দেয়ায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে কক্সবাজার সদর থানায় গিয়েছিলেন শিপ্রা দেবনাথ। কিন্তু মধ্যরাতে তার মামলাটি গ্রহণ করেনি পুলিশ। তাদের দাবি, ঘটনাস্থল কক্সবাজার সদর থানার আওতাধীন নয়।

সংশ্লিষ্ট রামু থানা অথবা ট্রাইব্যুনালে মামলা করার পরামর্শ দিয়ে শিপ্রাসহ তার আইনজীবীকে ফিরিয়ে দেন সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খাইরুজ্জামান।

গতকাল ১৮ আগস্ট, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে আইনজীবী মাহাবুবুল আলম টিপু ও বন্ধু সাহেদুল আলম সিফাতকে নিয়ে মামলা দায়ের করতে কক্সবাজার সদর থানায় যান পুলিশের গুলিতে নিহত মেজর (অব.) সিনহা মো. রাশেদ খানের সহকর্মী শিপ্রা দেবনাথ।

তিনি ফেসবুকে বিকৃত ছবি পোস্ট করায় সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান ও পিবিআইএর এসপি মিজানুর রহমান শেলিসহ অজ্ঞাতনামা দেড়শজনের নামে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করতে গিয়েছিলেন। কিন্তু মামলাটি গ্রহণ করেনি কক্সবাজার সদর থানা।

এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খাইরুজ্জামান বলেন, পুলিশের গুলিতে মেজর (অব.) সিনহার নিহতের ঘটনাস্থলটি রামু থানার অন্তর্গত। তাই শিপ্রা দেবনাথের আইনজীবীকে পরামর্শ দিয়েছি সংশ্লিষ্ট থানায় গিয়ে ও বিশেষ ট্রাইব্যুনালে মামলাটি করতে।’

আর শিপ্রার আইনজীবী মাহাবুবুল আলম টিপু জানিয়েছেন, তাদের মামলা নেয়নি কক্সবাজার সদর থানা। ওসি তাদের বলেছেন যেহেতু শিপ্রাসহ পুরো টিমের ডিভাইস রামু থানা জব্দ করেছে তাই এই অভিযোগটা ওই থানায় দেওয়াই সংগত।

তারা এখন বসে কথা বলে পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করবেন বলেও জানান এই আইনজীবী।

গত ৩১ জুলাই কক্সবাজারের মেরিন ড্রাইভ সড়কে পুলিশের গুলিতে নিহত হন অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান। তিনি সহকর্মীদের নিয়ে ইউটিউব চ্যানেলের জন্য ভিডিওচিত্র ধারণ করতে সেখানে গিয়েছিলেন। তার সাথে ছিলেন সহকর্মী সাহেদুল আলম সিফাত। অপর এক সহকর্মীর সাথে তখন হোটেলে ছিলেন শিপ্রা দেবনাথ।

এই ঘটনার পর হোটেল থেকে শিপ্রাকে আটক করে মাদক মামলায় গ্রেপ্তার দেখায় পুলিশ। পরে তিনি ও সিফাত জামিনে মুক্তি লাভ করেন।

হোটেল থেকে তাদের ব্যবহৃত কম্পিউটার-ল্যাপটপ ও হার্ডডিস্ক নিয়ে গেলেও মামলার জব্দ তালিকায় এসব উল্লেখ করেনি পুলিশ। কিন্তু এর পরপরই শিপ্রার কিছু ব্যক্তিগত ছবি-ভিডিও ফেসবুকসহ নানা মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এতে তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে নানা প্রশ্ন তোলা হচ্ছিল।

এ বিষয়ে ব্যক্তিগত ছবি ফেসবুকে পোস্টকারী পুলিশ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করার ঘোষণা দেন শিপ্রা দেবনাথ।

 

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

হজে গিয়ে ১০ বাংলাদেশির মৃত্যু
কর ও ভ্যাটের চাপ আরও বাড়বে
ইসরাইলের সামরিক ঘাঁটিতে ভয়াবহ ড্রোন হামলা হিজবুল্লাহর
ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি দিতে সব দেশের প্রতি আহ্বান জাতিসংঘের
মোদি না রাহুল, কে হচ্ছেন ভারতের কান্ডারি?
ঢাকার কাছেই চলে এসেছে সবচেয়ে বিষধর রাসেলস ভাইপার

আরও খবর