Header Border

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (বর্ষাকাল) ৩০.৯৬°সে

ষোড়শ এশিয়া কাপের পর্দা উঠছে আজ

সময় সংবাদ রিপোর্টঃ পাকিস্তান-নেপালের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে আজ পর্দা উঠতে যাচ্ছে ষোড়শ এশিয়া কাপ ক্রিকেটের। ১৫ বছর পর ঘরের মাঠে শুরু হওয়া এশিয়া কাপে নেপালের বিপক্ষে জয় দিয়ে আরম্ভের লক্ষ্য পাকিস্তানের। অন্যদিকে এশিয়া কাপে নিজেদের অভিষেক ম্যাচে বিশ্বকে চমকে দিতে মরিয়া নেপাল। ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচটি মুলতানে শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকাল ৩টা ৩০ মিনিটে। এবারই প্রথম এশিয়া কাপ খেলছে নেপাল। মুলতানে ম্যাচটির আগে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান রাখা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক আয়োজন থাকবে। সংগীত পরিবেশন করবেন ভারতীয় কিংবদন্তি শিল্পী এ আর রহমান ও পাকিস্তানের জনপ্রিয় শিল্পী আতিফ আসলাম। এ ছাড়া থাকবে ঐতিহ্যবাহী এশিয়ান সংগীত ও নৃত্য পরিবেশনা। থাকছে মনোমুগ্ধকর আতশবাজি। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সরাসরি সম্প্রচার করবে টুর্নামেন্টের ব্রডকাস্টার স্টার স্পোর্টস। বাংলাদেশে স্টার স্পোর্টস ছাড়াও পুরো টুর্নামেন্ট ও উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি দেখা যাবে টি-স্পোর্টসে। বাংলাদেশ সময় বিকাল ৩টায় অনুষ্ঠান শুরু হবে।

এবারে এশিয়া কাপ নিয়ে ছিল অনেক অনিশ্চয়তা। ভারত পাকিস্তানে খেলতে না চাওয়ায় শঙ্কা জেগেছিল এশিয়া কাপ আয়োজন নিয়ে। শেষ পর্যন্ত পিসিবি প্রধান নাজাম শেঠীর ‘হাইব্রিড’ মডেল এশিয়া কাপের আয়োজনের প্রস্তাব দিলে সমস্যা কেটে যায়। পাকিস্তানের পাশাপাশি শ্রীলংকাও আয়োজকের ভূমিকা পালন করছে এবার।

এশিয়া কাপ দিয়ে দীর্ঘদিন পর বড় কোনো টুর্নামেন্ট আয়োজন করতে যাচ্ছে পাকিস্তান। জাতিসংঘের নিয়মিত ব্রিফিংয়েও এসেছে এশিয়া কাপ প্রসঙ্গ।

সোমবার জাতিসংঘের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে পাকিস্তান ও শ্রীলংকার মাটিতে শুরু হতে যাওয়া এশিয়া কাপ ক্রিকেটে সংস্থাটির কোনো সম্পৃক্ততা আছে কি না- এক সাংবাদিকের করা এমন প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসের মুখপাত্র স্টিফেন ডুজারিক।

তিনি বলেন, ‘আমি ক্রিকেট দেখতে ভালোবাসি। যদিও আমি খেলাটির কিছুই বুঝি না। কিন্তু আমি মনে করি ফুটবল এবং রাগবির মতো ক্রিকেট। এ ছাড়া বিশ্বজুড়ে আরও এমন অনেক খেলাই মানুষকে একত্রিত করার, দেশগুলোকে এককাতারে নিয়ে আসার, সংস্কৃতির মেলবন্ধন ঘটানোর প্রচুর সম্ভাবনা রয়েছে এবং ক্রিকেট তা করে। এশিয়া কাপের মতো নির্দিষ্ট কোনো ইভেন্টে সম্পৃক্ততা আছে কি না তা আমি আমাদের স্থানীয় দেশের প্রতিনিধিদের সঙ্গে যাচাই করে দেখব।

এবারের এশিয়া কাপ শুরুতে পাকিস্তানে আয়োজনের কথা থাকলেও ভারতের আপত্তিতে আয়োজন নিয়ে শঙ্কা দেখা দেয়। পরবর্তী সময় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান নাজাম শেঠীর প্রস্তাবে হাইব্রিড মডেলে এশিয়া কাপ আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সর্বশেষ ২০০৮ সালে ঘরের মাঠে এশিয়া কাপ আয়োজন করেছিল পাকিস্তান। ১৫ বছর পর এবার ঘরের মাঠে এশিয়া কাপ আয়োজনের সুযোগ পায় পাকরা। কিন্তু রাজনৈতিক কারণে ভারতীয় দল পাকিস্তান সফরে রাজি না থাকায় হাইব্রিড মডেলে অনুষ্ঠিত হচ্ছে এবারের এশিয়া কাপ। হাইব্রিড মডেলের কারণে টুর্নামেন্টের ১৩টি ম্যাচের মধ্যে মাত্র ৪টি ম্যাচ পাকিস্তানে এবং বাকি ৯টি হবে শ্রীলংকার মাটিতে। নিজেদের সব ম্যাচ শ্রীলংকায় খেলবে ভারত। ১৭ সেপ্টেম্বর টুর্নামেন্টের ফাইনাল হবে শ্রীলংকার কলম্বোতে।

ঘরের মাঠে চার ম্যাচের মধ্যে পাকিস্তানে খেলা রয়েছে মাত্র দুটি। নেপালের পর সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচ (যদি সুপার ফোরের টিকিট পায়) খেলবে তারা।

এশিয়া কাপের মঞ্চে পাকিস্তানের পারফরমেন্স খুব বেশি ভালো নয়। ২০০০ ও ২০১২ সালে, মাত্র দুবার শিরোপা জিতেছিল তারা। গেল আসরে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের ফাইনালে উঠলেও শিরোপা জিততে পারেনি পাকিস্তান।

ব্যাটিং-বোলিং দুই বিভাগেই ভারসাম্যপূর্ণ দল পাকিস্তান। দারুণ ফর্মে রয়েছেন ব্যাটার ইমাম উল হক, অধিনায়ক বাবর আজম। আফগানিস্তান সিরিজেই ক্যারিয়ারের ১০০তম ইনিংস শেষে সর্বোচ্চ রানের বিশ্বরেকর্ড দখলে নেন বাবর।

মিডল অর্ডারে পাকিস্তানের ভরসা মোহাম্মদ রিজওয়ান, আগা সালমান, ইফতিখার আহমেদ, শাদাব খান। আফগানিস্তানের সিরিজে সেই প্রমাণ রেখেছেন তারা।

বিশ্বের অন্যতম সেরা বোলিং লাইনআপ পাকিস্তানের। বিপক্ষ দলের বড় চিন্তার কারণ পাকিস্তানের তিন পেসার শাহিন শাহ আফ্রিদি, হারিস রউফ ও নাসিম শাহ। অলরাউন্ডার হিসেবে দলের ভরসা শাদাব, ফাহিম আশরাফ, মোহাম্মাদ নাওয়াজ ও মোহাম্মদ ওয়াসিম।

শেষ মুহূর্তে এশিয়া কাপের দলে পরিবর্তন আনে পাকিস্তান। তায়েব তাহিরের পরিবর্তে সৌদ শাকিলকে দলে নেয় তারা।

এদিকে গত মে মাসে এসিসি প্রিমিয়ার কাপের ফাইনালে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো এশিয়া কাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে নেপাল। ২০১৮ সালে ওয়ানডে মর্যাদা পাওয়ার পর এখন অবধি ৫৭টি ম্যাচ খেলেছে তারা। এর মধ্যে ৩০টিতে জয় ও ২৫টিতে হার রয়েছে। ১টি করে ম্যাচ টাই ও পরিত্যক্ত হয় নেপালের।

২০১৯ সালের বিশ^কাপের পর চতুর্থ সর্বোচ্চ ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছে নেপাল। ৫১টি ম্যাচে ২৭টিতে জয় ও ২২টিতে হেরেছে তারা। এ সময় ৩১টি ম্যাচ খেলেছে পাকিস্তান।

এবারই প্রথম পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে নেপাল। এখন পর্যন্ত আইসিসির পূর্ণ সদস্য দলগুলোর মধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, জিম্বাবুয়ে ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে খেলেছে হিমালয়ের পাদদেশের দলটি।

নেপাল ক্রিকেটের বড় তারকা স্পিনার সন্দ্বীপ লামিচানে। এশিয়া কাপের কারণে লামিচানের বিরুদ্ধে চলমান ধর্ষণ মামলা স্থগিত করা হয়। গত রবিবার মামলার শুনানি থাকার কারণে মূল দলের সঙ্গে পাকিস্তান যেতে পারেননি তিনি। দেরিতে হলেও ২৮ আগস্ট একাকী দলের সঙ্গে যোগ দেন তিনি।

পাকিস্তান-নেপালের সঙ্গে ‘এ’ গ্রুপ আছে ভারত। ‘বি’ গ্রুপে রয়েছে বাংলাদেশ, শ্রীলংকা ও আফগানিস্তান।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

হজে গিয়ে ১০ বাংলাদেশির মৃত্যু
কর ও ভ্যাটের চাপ আরও বাড়বে
ইসরাইলের সামরিক ঘাঁটিতে ভয়াবহ ড্রোন হামলা হিজবুল্লাহর
ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি দিতে সব দেশের প্রতি আহ্বান জাতিসংঘের
মোদি না রাহুল, কে হচ্ছেন ভারতের কান্ডারি?
ঢাকার কাছেই চলে এসেছে সবচেয়ে বিষধর রাসেলস ভাইপার

আরও খবর